অনলাইন ইওর হেল্‌থ ডেস্কঃ ভারতে ক্যান্সারের প্রকোপ বেড়েই চলেছে। প্রতিদিন এই প্রাণঘাতী রোগে ভারতে ১৩০০’র বেশি মানুষ মারা যায়। ভারতীয় চিকিৎসা অনুসন্ধান পরিষদ (আইসিএমআর)-এর জাতীয় ক্যান্সার নিবন্ধন কার্যক্রমের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১২ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ক্যান্সারে মৃত্যুর হার ৬ শতাংশ বেড়েছে। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক সিনিয়র কর্মকর্তা জানান, ‘২০১৪ সালে দেশে ক্যান্সারে প্রায় ৫ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ২০১৪ সালে ২৮ লাখ ২০ হাজার ১৭৯টি ক্যান্সারজনিত ঘটনায় মোট ৪ লাখ ৯১ হাজার ৫৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২০১৩ সালে ২৯ লাখ ৩৪ হাজার ৩১৪টি ঘটনায় ৪ লাখ ৭৮ হাজার ১৮০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ২০১২ সালে এই রোগের ৩০ হাজার ১৬ হাজার ৬২৮টি ঘটনায় ৪ লাখ ৬৫ হাজার ১৬৯ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে।  স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বলছেন, স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর জীবনধারা, তামাক এবং তামাকজাত দ্রব্যের ব্যবহার, অস্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহণ এবং ডায়গনস্টিক সুবিধার অভাবসহ বিভিন্ন কারণকে ক্যান্সারের জন্য দায়ী করা যেতে পারে।’  ভারতে যক্ষা (টিবি) রোগের কারণেও বহু মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। সংশোধিত জাতীয় যক্ষ্মা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি (রিভাইজড ন্যাশনাল টিউবারক্লোসিস কন্ট্রোল প্রোগ্রাম)-এর রেকর্ড অনুসারে দেশে বেশি সংখ্যায় মানুষের মৃত্যুর অন্যতম কারণ টিউবারক্লোসিস বা টিবি।    টিভি রোগের কারণে দেশে ২০১১ সালে ৬৩ হাজার ২৬৫ জন, ২০১২ সালে ৬১ হাজার ৮৮৭ জন এবং ২০১৩ সালে ৫৭ হাজার ০৯৫ জন মানুষের প্রাণ গেছে। স্বাস্থ্য কর্মসূচি অনুযায়ী রোগীদের মধ্যে সরকার বিনামূল্যে টিবি প্রতিষেধক ওষুধসহ টিবি নির্ণয় ও চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে।

 

টি মন্তব্য

মন্তব্য বন্ধ

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।