অনলাইন ইওর হেল্‌থ ডেস্কঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বলেছেন,  নার্সসহ সংশ্লিষ্ট সকলকেই রোগীদের সম্পূর্ণ দায়িত্ব  নিতে হবে। সবার আন্তরিক সেবার মাধ্যমেই রোগীকে সম্পূর্ণ সুস্থ করে তোলা সম্ভব বলে মন্তব্য করেন তিনি। মঙ্গলবার বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিলন হলে আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো এবারো বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক নার্সেস দিবস পালিত হয়। এবারে দিবসটির প্রতিপাদ্য হলো ‘স্বল্পমূল্যে সর্বোত্তম সেবা।’ উপাচার্য আরো বলেন, বিএসএমএমইউতে রোগী ও তাদের অভিভাবকবৃন্দ চিকিৎসাসেবা নিয়ে যাতে দুশ্চিন্তায় না থাকেন তা নিশ্চিত করা হবে।

তিনি অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের নবজাতক বিভাগের এনআইসিইউ’র চিকিৎসাসেবার উদাহরণ দিয়ে বলেন, সেখানে চিকিৎসক, নার্সসহ সংশ্লিষ্ট সকলে টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে মুমূর্ষু ও নানা রোগে আক্রান্ত নবজাতকদের চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। যা চিকিৎসাসেবা কেমন হওয়া উচিত-এর একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। এসময় তিনি বলেন, ধর্ণাঢ্য পরিবারের সন্তান আধুনিক নার্সিং-এর জননী ও অগ্রদূত ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল শুধু নার্সদের কাছে নয়; তিনি ছিলেন মানবজাতির আদর্শ। ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলের জীবনাদর্শ অনুসরণ করে সকল বাধা ও কষ্টকে জয় করে হাসিমুখে কথা বলে, নিজের হাতে ওষুধ খাইয়ে রোগীদেরকে সুস্থ করে তাঁদের সন্তুষ্টি নিশ্চিত করতে হবে। নার্সগণ নিজ পেশার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করার মাধ্যমেই এ পেশার ও নিজের মর্যাদা আরো বৃদ্ধি করতে পারেন।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোঃ জুলফিকার রহমান খান, নার্সিং অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. শাহানা আখতার রহমান, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মোঃ আসাদুল ইসলাম, পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেঃ জেনারেল (অব.) মোঃ আব্দুল মজিদ ভূঁইয়া। বিএসএমএমইউ’র ভারপ্রাপ্ত সেবা তত্ত্বাধায়ক সান্তনা রানী দাসে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপসেবা তত্ত্বাধায়ক (শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ) হালিমা বেগম। এসময় আরো বক্তব্য রাখেন স্থানীয় কাউন্সিলর এ্যাড. আব্দুল হামিদ। এর আগে দিবসটি আলোচনা সভার আগে সকাল সাড়ে ৮টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ব্লকের নীচে স্থাপিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মূর‌্যালে পুষ্পস্তক অর্পণ করা হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা থেকে বঙ্গবন্ধু উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান-এর নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অংশ প্রদক্ষিণ করে। শেষে একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

টি মন্তব্য

মন্তব্য বন্ধ

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।