অনলাইন ইওর হেল্‌থ ডেস্কঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান রোগীদের সাথে ভাল ব্যবহারের মাধ্যমে তাদের সন্তুষ্টি নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। তিনি বলেন, ‘রোগীরা অনেক কষ্ট নিয়ে হাসপাতালে আসেন। রোগীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করলে রোগীর রোগ অর্ধেক ভালো হয়ে যায়। হাসিমুখে কথা বললে রোগীর কষ্ট অনেকটাই দূর হয়ে যায়। তাই মনের ভেতর যতই কষ্ট থাক হাসিমুখে কথা বলে ভালো ব্যবহারের মাধ্যমে রোগীর সন্তুষ্টি নিশ্চিত করতে হবে।’

অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান আজ সোমবার বিএসএমএমইউ’র শহীদ ডা. মিলন হলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা ও নার্সদের সাথে পৃথকভাবে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন। বিএসএমএমইউ’র উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. মোঃ রুহুল আমিন মিয়া, উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. মোঃ আসাদুল ইসলাম, পরিচালক (হাসপাতাল) বিগ্রেডিয়ার জেনারেল অব. মোঃ আব্দুল মজিদ ভূঁইয়া, পরিচালক (মানবসম্পদ উন্নয়ন) ডা. জামাল উদ্দিন খলিফা, পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. আবু নাসার রিজভী, পরিচালক (অর্থ ও হিসাব) ছিদ্দিকুর রহমান ভূঞা, সেবা তত্ত্বাবধায়ক শান্তনা রানী দাস প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন । বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম হলো একটি টিমওয়ার্ক এ কথা উল্লেখ উপাচার্য বলেন, পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ, যথাযথ দায়িত্ব পালন, পারস্পরিক বোঝা-পড়া, আন্তরিকতা ও সঠিক সমন্বয়ের মাধ্যমে এই টিম ওয়ার্ক পূর্ণতা পেতে পারে।

অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান বলেন, সামগ্রকি প্রচেষ্টার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে সত্যিকার অর্থেই মর্যাদার আসনে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক পরিবেশকে আরো সুন্দর করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি বলেন, এ হাসপাতালে চিকিৎসক-বান্ধব, নার্স-বান্ধব, কর্মকর্তা-বান্ধব, কর্মচারী-বান্ধব পরিবেশকে আরো শক্তিশালী করা হবে। উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান আরো বলেন, চিকিৎসক ও নার্সদের সঙ্গে রোগীদের রয়েছে নিবিড় সম্পর্ক। এর মধ্যে নার্সদের সেবার উপর হাসপাতালের ইমেজ সবচাইতে বেশি নির্ভর করে। ‘আমি আশাকরি, সকল নার্স ভাইবোনেরা পরম মমতায় রোগীদের নিজ হাতে ওষুধ খাইয়ে দিবেন, রোগীদের সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলবেন এবং কমপক্ষে তিন বার রোগী ভালো আছেন কি-না, সুস্থবোধ করছেন কি-না তা জিজ্ঞাসা করে সংশ্লিষ্ট নার্স রোগীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করবেন।’

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।