অনলাইন ইওর হেল্‌থ ডেস্কঃ ঢেঁড়শ আমাদের দেশের একটি জনপ্রিয় সবজি। ঢেঁড়শে  আছে প্রচুর পরিমাসে ভিটামিন নি ও সি এবং এছাড়াও পর্যাপ্ত পরিমানে আয়োজিন, ভিটামিন “এ“ ও বিভিন্ন  খনিজ পদার্থ  ঢেঁড়শ নিয়মিত খেলে গলাফোলা রোগ হবার সম্ভাবনা থাকে না এবং এটা হজম শক্তি বৃদ্ধিতেও সহায়তা করে। ঢ়েঁড়শ পুষ্টিসমৃদ্ধ গ্রীষ্মকালীন সবজি। ঢেঁড়শে প্রচুরপরিমাণ ক্যালসিয়াম,ম্যাগনেসিয়াম,ফসফরাস ও আয়রন আছে।এতে রিবোফ্লাবিনের পরিমাণ বেগুন,মুলা ও টমেটোর চেয়ে বেশি আছে। এটা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। প্রস্রাব ও পায়খানা পরিষ্কার করে।খুসখুসে কাশির উপকার হয়।হজমশক্তি বাড়ায়,বাতের প্রকোপ কমায়। ডায়বেটিসের জন্য উপকারী।প্রোস্টেট গ্ল্যান্ডের ক্ষরণ দূর করে।

পুষ্টিবিজ্ঞানীদের গবেষনা অনুযায়ী প্রতি ১০০ গ্রাম খাদ্যোপযোগী ঢেঁড়শে পুষ্টি থাকে-আমিষ ১.৯ গ্রাম,শকর্রা ৬.৪ গ্রাম,চর্বি ০.২ গ্রাম,আঁশ ১.২ গ্রাম।ক্যালসিয়াম ১১৬ মিলিগ্রাম,ম্যাগনেসিয়াম ৪৩ মিলিগ্রাম,ফসফরাস৫৬ মিলিগ্রাম,পটাসিয়াম ১০৩ মিলিগ্রাম,সালফার ৩০ মিলিগ্রাম,থায়মিন ০.১৭ মিলিগ্রাম,রিবোফ্লাবিন০.০১ মিলিগ্রাম ও খাদ্যশক্তি ৪৩ কিলোক্যালোরি।ঢেঁড়শের জাত এবং উৎপাদন স্থানের পরিবতর্নের জন্য পুষ্টিমান  কিছুটা তারতম্য হতে পারে।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।