সীমা আক্তার মেঘলা: ধূমপানের অভ্যাস মানুষকে দ্রুত অকাল বার্ধক্যে নিয়ে যায়। ধূমপানের মতোই প্রতিদিন মাত্র আধা লিটার কোমল পানীয় পান করার অভ্যাস স্বাভাবিক বয়স বৃদ্ধির তুলনায় প্রায় সাড়ে চার বছর আগেই বার্ধক্য ডেকে আনে। আমেরিকান জার্নাল অব পাবলিক হেলথে প্রকাশিত কোমল পানীয়ের ওপর করা একটি গবেষণার ফল এমনই ইঙ্গিত দিয়েছে। এই গবেষণায় দেখানো হয়েছে, চিনিযুক্ত কোমল পানীয়ের ফলে দেহকোষের মধ্যে বার্ধক্য সঞ্চারিত হয়। তা ছাড়া এসব চিনি ও সোডাযুক্ত পানীয় মুটিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা বাড়িয়ে দেহে রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়ায়। ডিএনএকে রক্ষাকারী অংশ হচ্ছে টেলোমার। টেলোমার ক্রোমোসোমের প্রান্তে অবস্থান করে ক্রোমোসোমকে রক্ষা করে। এই গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব লোক বেশি পরিমাণে কোমল পানীয় পান করেন, তাদের রক্তের শ্বেতকণিকায় এই টেলোমারগুলো অপেক্ষাকৃত খর্বাকৃতির হয়। এর আগের কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, এই টেলোমারের দৈর্ঘ্য মানুষের বয়সসীমার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত।

এ গবেষণার অন্যতম গবেষক ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মনঃচিকিৎসার অধ্যাপক এলিসা এপেল বলেন, নিয়মিত চিনিযুক্ত কোমল পানীয় পান রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়িয়ে তোলে।কোমল পানীয় শুধু শরীরের চিনির পরিপাক প্রক্রিয়াকেই ব্যাহত করে না; সেই সঙ্গে দেহকলার কোষীয় পর্যায়ে দ্রুত বার্ধক্য আনে। আমাদের এই গবেষণায়ই প্রথম দেখানো হচ্ছে, কোমল পানীয় মানুষের জীবনকাল নির্দেশক টেলোমারের দৈর্ঘ্য হ্রাস করে। টেলোমারের দৈর্ঘ্য হ্রাস পাওয়ার এই প্রক্রিয়া ধূমপানের কারণেও প্রভাবিত হয়। অন্যদিকে শরীরচর্চা বা ব্যায়াম করলে টেলোমারের দৈর্ঘ্য খুব সহজে হ্রাস পেতে পারে না। এ কারণে যারা নিয়মিত শরীরচর্চা করেন তাদের মধ্যে বার্ধক্য অপেক্ষাকৃত দেরিতে আসে।

অন্যদিকে অকাল বার্ধক্য আনয়নকারী দীর্ঘস্থায়ী ব্যাধি যেমন হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, কিছু ধরনের ক্যান্সার ইত্যাদির ক্ষেত্রেও দেখা যায় খর্বাকৃতির টেলোমারের যোগসূত্র রয়েছে। এসব বিবেচনা করেই গবেষকরা কোমল পানীয় সংক্রান্ত গবেষণায় এ সিদ্ধান্তে এসেছেন। এ গবেষণার জন্য গবেষকরা ২০ থেকে ৬৫ বছর বয়সী ৫ হাজার ৩০৯ জন অংশগ্রহণকারীর সংরক্ষিত ডিএনএ নিয়ে টেলোমার পরীক্ষা করেন। এই অংশগ্রহণকারীদের কারও ডায়াবেটিস বা হৃদরোগ ছিল না।

সুত্রঃ টাইমস অব ইন্ডিয়া

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।