অনলাইন ইওর হেল্‌থ ডেস্কঃ সারা দেশে প্রচণ্ড গরম পরছে আর এই গরমে এক গ্গ্নাস ঠাণ্ডা তাজা ফলের রসের জুড়ি নেই।  ক্লান্তি দূর করার পাশাপাশি পুষ্টির জোগান ও রসনাতৃপ্তিতে এই পানীয় অতুলনীয়। কিন্তু শিশুদের জন্য বাজারে ক্যানে বা প্যাকেটজাত যে জুস বা কোমল পানীয় পাওয়া যায় তা কি আসলে স্বাস্থ্যসম্মত? গবেষকদের উত্তর নেতিবাচক। তারা বলছেন, এই জুসে রয়েছে অতিমাত্রায় চিনি, যা শিশুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।

এক গ্গ্নাস কোকাকোলায় যে পরিমাণ চিনি থাকে প্যাকেট বা বোতলজাত জুসেও তা থাকে সমপরিমাণ।সম্প্রতি ব্রিটেনে অ্যাকশন অন সুগার নামে একটি প্রচার অভিযান পরিচালিত হয়। এ অভিযান চলাকালে পরিচালিত এক জরিপে দেখা যায় ২৫০ মিলিলিটার পরিমাণ জুসে ৬ চা-চামচ পরিমাণ চিনি থাকে।

বিভিন্ন ধরনের প্যাকেটজাত জুসের ২০০-এর বেশি নমুনা বিশ্লেষণ করে এ উপাত্ত পান গবেষকরা। অ্যাকশন অন সুগারের চেয়ারম্যান অধ্যাপক গ্রাহাম ম্যাকগ্রেগর বলেন, শিশু ও রোগীদের জন্য প্যাকেটজাত যে জুস স্বাস্থ্যকর বলে বাজারজাত করা হচ্ছে তা আসলে অপপ্রচার ছাড়া আর কিছুই না। এটি অবিলম্বে বন্ধ করা উচিত। কারণ আমাদের শিশুদের মুটিয়ে যাওয়ার প্রবণতা ক্রমেই নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে।হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অসীম মালহোত্রার সতর্কবার্তা হচ্ছে, নিয়মিত অতিরিক্ত চিনি গ্রহণ করলে দন্তক্ষয় ছাড়াও টাইপ-২ ডায়াবেটিস ও হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ে। তাই কৃত্রিম জুস কখনও স্বাস্থ্যকর সুষম খাদ্যের অংশ হতে পারে না।

সূত্র :বিবিসি অনলাইন

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।