অনলাইন ইওর হেল্‌থ ডেস্কঃ গর্ভাবস্থায় অনেক সময়ই দেখা যায় মায়েদের দাঁতের মাড়ি লাল হয়ে ফুলে আছে। আবার অনেক সময় মাড়ি খেকে রক্তও পড়ছে। গর্ভকালীন সময়ে মাড়িতে যে ইনফেকশন দেখা যায় তাকে প্রেগন্যান্সি জিনজিভাইটিস (pregnancy gingivitis) বলা হয়।

প্রেগন্যান্সি জিনজিভাইটিস এর কারণসমূহ: আমাদের মুখে অসংখ্য ব্যাকটেরিয়া থাকে। এদের মধ্যে কিছু কিছু ব্যাকটেরিয়া ক্ষতিকর আর কিছু থাকে উপকারী। এসব ব্যাকটেরিয়া খাদ্য কণিকার সাহায্যে মুখে একটা সাদা আস্তরন তৈরি করে। আর এই আস্তরণকেই বলা হয় প্লাক গর্ভকালীন সময়ে কিছু হরমোন এসব ব্যাকটেরিয়াল প্লাক তৈরির প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে। এ ছাড়া গর্ভাবস্থার আগ থেকেই ক্যালকুলাস থাকলে।  দাঁত খুব বেশি আঁকাবাঁকা থাকলে। ডায়াবেটিস দেখা দিলে।

প্রেগন্যান্সি জিনজিভাইটিস লক্ষণসমূহ: মাড়ি লাল হয়ে যায়।  মাড়ি কিছুটা ফুলে থাকে। হালকা ব্যথা অনুভূত হয়। চাপ দিয়ে থাকলে বা ব্রাশ করলে রক্ত পড়ে। মাড়ি নিচের দিকে সরে যেতে থাকে।

চিকিৎসা: প্রথমেই আপনার যে কারণে মাড়ির প্রদাহ দেখা দিচ্ছে তা সরিয়ে ফেলতে হবে। জিনজিভাউটিস হলে সাধারণত স্কেলিং করার জন্য বলা হয়। যেহেতু গর্ভকালীন সময়ে আল্ট্রাসনিক স্কেলিং করা সম্ভব নয়, তাই হ্যান্ড স্কেলিং করানো যেতে পারে। আর প্রদাহ যদি পেরিওডেন্টাল টিস্যু বা মাড়িতে যদি কোনো টিউমার দেখা যায় তবে তা অবস্থাভেদে সার্জিক্যাল এঙসিশন করতে হতে পারে। আপনি যদি গর্ভকালীন সময়ে উপরের যে কোনো একটি সমস্যায়ও ভুগে থকেন তবে অতি দ্রুত আপনার নিকটস্থ দন্ত চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।  পরিশেষে বলা যায় যে, নিয়মিত ব্রাশ এবং মুখ পরিষ্কার রাখার মাধ্যমেই একমাত্র এসব সমস্যা হতে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।