প্রতিদিনই বাসা থেকে বের হই নানা প্রয়োজনে। সময় এবং স্থান ভেদে কমবেশি মেকআপও করে থাকি। মুখে হালকা কমপ্যাক্ট পাউডার, চোখে সামান্য কাজল আর ঠোটে হালকা লিপস্টিক। কখনো অনুষ্ঠান বুঝে ভারী মেকআপ। যাতে আমাদের খুঁতগুলোকে ঢেকে চেহারার সৌন্দর্যকে আরো সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা যায়। মেকআপ করার সময় দারুন উত্সাহ থাকে আমাদের। কিন্তু দিন শেষে বাসায় ফিরে তা তোলার ব্যাপারে আর উত্সাহ থাকে না।
মাঝে মাঝেই মেকআপ না তুলে ঘুমিয়ে পড়ি অনেকেই। কখনো হয়তো সারা দিন খুব ক্লান্ত থাকার ফলে মেকআপ তুলতে ইচ্ছে করে না। কিংবা মেকআপ তোলার কথা হয়তো ভুলেই যায় অনেক সময়। আমরা বেশির ভাগ সময়েই ভাবি, সামান্য লিপস্টিক বা কাজল থাকলে কী বা এমন ক্ষতি। এমনটা মাঝেমধ্যে হলে ঠিক আছে। কিন্তু এটা অভ্যাসে দাঁড়িয়ে গেলে ক্ষতিটা কিন্তু আপনার ত্বকেরই।
ক্ষতিকর দিক
পরিষ্কার মুখের লোমকুপের ছিদ্র দিয়ে অক্সিজেন প্রবেশ করতে পারে। যা কোষ গুলো সতেজ রাখতে সাহয্য করে। এ ছাড়াও ত্বক থেকে এক ধরনের তৈলাক্ত পদার্থ বের হয়, যা ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু মেকআপ বেশিক্ষণ লাগানো থাকলে আমাদের শরীরের এই স্বাভাবিক প্রক্রিয়াগুলো বাধা পায়। ত্বকের ভিতরের ঘাম বেরোতে বাধা দেয়, ত্বকের কোষে ঠিকমতো অক্সিজেন পৌঁছায় না। মেকআপ না তুলে ঘুমিয়ে পড়লে ত্বকে ফুসকুড়ি, বলিরেখা, শুষ্কতাসহ বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই দীর্ঘদিন ধরে মেকআপ না তুলে শুয়ে পড়ার অভ্যাস তৈরি হয়ে গেলে অবধারিতভাবে ত্বকে দেখা দিতে পারে ব্রণের সমস্যা। আর আমাদের কারো কাছেই এই সমস্যাগুলো একেবারেই বাঞ্ছনীয় নয়।
যা করনীয়
ত্বকের এই সামান্য প্রয়োজনগুলোকে অবহেলা করাটা একেবারেই উচিত নয়। ত্বকের পরিচ্ছন্নতা সম্পর্কে সামান্য সচেতন থাকলেই অনায়াসে ত্বককে রাখা যায় সুন্দর, সতেজ ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল। তবে তার জন্য প্রয়োজন ত্বকের সঠিক যত্নের। প্রতিদিন অন্তত দু বার ভালো ক্লিনজার দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করতে হবে। অবশ্যই রাতে শোবার আগে মেকআপ তুলে নেয়া উচিৎ। সামান্য মেকআপকে অবহেলা করা নয়।woman-removing-makeup

যাদের খুব বেশি মেকআপ করতে হয় তারা বিউটি পারলারে গিয়ে মাসে অন্তত একবার ফেসিয়াল করাতে পারেন। বাড়িতেও ত্বকের অবস্থা অনুযায়ী নিয়মিত ক্লিনজিং, টোনিং এবং ময়েশ্চারাইজিং করালে ভাল ফল পাওয়া যাবে। আমাদের চোখের চারপাশের ত্বক খুবই নরম ও স্পর্শকাতর। আলতো করে তুলতে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করতে পারেন। এছাড়াও চোখের মেকআপ তোলার জন্য বিশেষ রকমের ক্লিনজার পাওয়া যায়। সেটাও ব্যবহার করতে পারেন।

টি মন্তব্য

একটি মন্তব্য

  1. মেকআপ তোলা জরুরী এই নিউজটা দেওর জনও অনেক ধন্যবাদ ।

Leave a Reply to fashions-flow বাতিল

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।