স্মার্ট জীবনের অনুষঙ্গ হতে পারে একটি স্মার্টফোন। আর সেই ফোনের স্মার্টনেস নিশ্চিত করতে শুধু ভাল কনফিগারেশনই নয়, চাই তার জাকজমক সাজগোজও। এসময় মোবাইল ব্যবহার করে না এমন মানুষ পাওয়া কঠিন। কেউ কেউ আবার ব্যবহৃত ফোনটিকে যত্ন-আত্মিও করেন বেশ। এক্ষেত্রে ফোনের উপর কাভার দেয়া, স্টিকার লাগোনো নতুন কিছু নয়। তবে সব কিছুই যেন একটু কমন হয়ে যায়। দৃষ্টিনন্দন শিল্পকর্মে যদি ফোনের কাভারটি করা যায় আপনার মনের মতো, তবে মন্দ কি? সবার থেকে আলাদা এবং নতুন কিছু করার এই প্রয়াসে আসুন শিখে নিই সহজ কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি।
ফোনের কাভারটি সাজাতে পছন্দ মত রঙের ফোন কেস, কেসের সঙ্গে রঙ মিলিয়ে গ্লিটার, একটি মাঝারি সাইজের বো, পুঁথি বা স্টোন ৩০-৩৫ টি, সুপার গ্লু এবং ভালো মানের আঠা নিতে হবে। আপনার ফোনের কাভারটি যদি পুরোনো বা নোংরা হয়ে থাকে তাহলে সাদা ক্রাইলিক রঙ দিয়ে কেসটি রঙ করে নিতে পারেন। কয়েকবার কোট করবেন তারপর ২৪ ঘণ্টা এটিকে শুকানোর জন্য রেখে দিবেন। কেস নির্বাচনের ব্যাপারে রাফ সারফেস দেখে নেয়ায় ভাল। মসৃণ সারফেস হলে পরবর্তীতে যে গ্লিটার লাগানো হবে তা ঝরে যাবার সম্ভাবনা থাকে। Beautiful-mobile-phone-case-cover-for-iphone-5-case-with-diamond-free-shipping
এবার সুপার গ্লু দিয়ে পুঁথি গুলো লাইন করে সাজিয়ে লাগিয়ে দিন ফোন কেসটির উপর। সেই সঙ্গে একটি বো লাগিয়ে নিতে পারেন কেসের উপরের যেকোনো এক কোনায়।
পরবর্তী ধাপে কিছু আঠার সঙ্গে গ্লিটার মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করতে হবে। পেস্টটি কেসের উপর কয়েক পরত লাগিয়ে নিন। খেয়াল রাখতে হবে যেন পুঁথির উপর গ্লিটার পেস্ট না লেগে থাকে। সবশেষে শুধু মাত্র ট্রান্সপারেন্ট কালারের আঠার লেয়ার গ্লিটারের পেস্টের ওপর ব্রাশ করে দিবেন। হয়ে গেল আপনার সেলফোন কেসের ভিন্ন রকম সাজ।
এছাড়াও বাজারে কিছু সিম্পল ফোন ব্যাক কাভার কিনতে পাওয়া যায়। অথবা আপনার পুরোনো কাভারও সাজিয়ে নিতে পারেন। লেইসের দোকান গুলোতে এমন স্টোনের লেইস, বো কিনতে পাওয়া যায়। সেগুলো দিয়ে সাজিয়ে নিতে পারেন ব্যাক কাভারটি। পছন্দ মত ডিজাইনে হবে আপনার ফোনের নতুন লুক। আবার কয়েক কালারের ফোন কেস তৈরি করে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে ব্যবহার করতে পারেন ভিন্ন ভিন্ন সময়ে।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।