যাদের মাথায় চুল কম তারা চুল ঘন করার জন্য ক্যাস্টর অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। কারণ এর মধ্যে রিসিনোলেইক এসিড নামে একটি উপাদান থাকে যা নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। চুল গজানোর ক্ষেত্রেই শুধু নয়, বরং শুস্ক চুলের রুক্ষতাও দূর করে এ ক্যাস্টার অয়েল।

কখন ব্যবহার করবেন এই ক্যাস্টার অয়েল:

ফল পাবার জন্য সপ্তাহে একবার করে কমপক্ষে ২ মাস ব্যবহার করতে হবে। রাতে ঘুমাবার আগে লাগিয়ে সকালে ধুয়ে ফেলুন। সম্ভব না হলে, মাথায় লাগিয়ে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করে কমপক্ষে ২ ঘন্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফলাফলের জন্য একটা ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভেঙ্গে ভিতরের তরলটা মিশিয়ে নিয়ে তারপর চুলে লাগান।

long-hairকোথায় পাবেন এই অয়েল:

বাজারে দেশি ও বিদেশি ২ ধরণের ক্যাস্টর অয়েলই পাওয়া যায়। দেশিগুলো ফার্মেসিতে পাওয়া যায়। ৭০ টাকা মূল্যের বোতল বড় চুলে ৪ বার ব্যবহার করা যায়।

শুধু মাথার চুল নয়, যারা চোখের পাপড়ি ঘন করতে চান তারা প্রতিদিন রাতে ঘুমানোর সময় ২-৩ ফোটা চোখের পাপড়িতে ব্যবহার করতে পারেন।আর বিদেশিগুলো যে কোনো সুপার শপ যেমন- আগোরা, মিনা বাজার, আলমাস অথবা বিভিন্ন বিউটি পার্লার সামগ্রীর দোকানে পাওয়া যায়। দাম আনুমানিক ২৫০ টাকা। তবে দেশের প্রস্তুতকৃত ক্যাস্টর অয়েলও কিন্তু যথেষ্ট কার্যকরী।

সতর্কতা:

ক্যাস্টর অয়েল মধুর মতো ঘন। তাই চটচটে ভাবের কারণে কারো কারো অস্বস্তি হতে পারে। এছাড়া এর মধ্যে রিসিন পদার্থ থাকায় তা পেটে গেলে ক্ষতি হয়। তাই ব্যবহারে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করুন।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।