ডেস্ক রিপোর্টঃ  জাপান সফররত স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বাংলাদেশে নির্মাণাধীন পাঁচটি সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে জাপানের মানদন্ডে গড়ে তুলতে সহায়তা করার জন্য সেদেশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। মন্ত্রী সোমবার জাপানের রাজধানী টোকিওতে সেদেশের স্বাস্থ্য, শ্রম ও সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী কেইকো নাগাওকা,পররাষ্ট্র বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মিনোরু কিউচি,জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা’র (জাইকা) ভাইস প্রেসিডেন্ট তোশিউকি কুরোইয়ানাগি, বাণিজ্য ও তথ্য নীতি ব্যুরোর মহাপরিচালক মাসাকি ইশিকাওয়া এবং হাসপাতালের যন্ত্রপাতি নির্মাতা বিশ্বখ্যাত ১১টি জাপানী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের সাথে পৃথক পৃথক বৈঠকে এ আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য,বর্তমানে বাংলাদেশের টাঙ্গাইল, জামালপুর, সিরাজগঞ্জ, মানিকগঞ্জ ও রাঙ্গামাটিতে পাঁচটি নতুন সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নির্মাণ কাজ চলছে। এসব বৈঠকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাপানকে বাংলাদেশের বিশ্বস্ত এবং অন্যতম উন্নয়ন সহযোগী বন্ধুরাষ্ট্র হিসাবে অভিহিত করে স্বাধীনতা যুদ্ধে সেদেশের অবদান এবং স্বাধীনতার পরপরই দ্রুত বাংলাদেশকে স্বীকৃতি প্রদানের কথা স্মরণ করেন। এসময় তিনি বাংলাদেশের ভৌত অবকাঠামোসহ, আর্থ-সামাজিক ও স্বাস্থ্যখাতে জাপানের অবদানের কথা কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করেন। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, স্বাস্থ্যখাতে বাংলাদেশের অর্জন অনেক। জাতিসংঘের এমডিজি অর্জনের পথে বাংলাদেশ সাফল্যের সাথে এগিয়ে চলেছে। শিশু ও মাতৃমৃত্যু হার কমানোর জন্য জাতিসংঘ বাংলাদেশকে পুরস্কৃত করেছে। দেশের তৃণমূল পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা বিশেষ করে প্রায় ১৩ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে গ্রামের মানুষের কাছে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেওয়ার সাফল্য আজ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রশংসিত হয়েছে এবং বিভিন্ন ফোরামে উদাহরণ হিসাবে তা দেখানো হচ্ছে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকার জনগণের দোরগোড়ায় আধুনিক চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতকে আধুনিক প্রযুক্তি-সমৃদ্ধ করে আরো দক্ষ ও শক্তিশালী করে গড়ে তুলতে কারিগরি সহায়তা বাড়ানোর জন্যও তিনি জাপানের প্রতি আহ্বান জানান। সাক্ষাৎকালে জাপানের প্রতিনিধিগণ বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতে জাপানী সহায়তায় বাস্তবায়নধীন বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

জাইকা বাংলাদেশের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা পুষ্টিখাত উন্নয়ন প্রকল্প এবং নিরাপদ মাতৃত্ব ও শিশুস্বাস্থ্য সেবার মান বৃদ্ধিতে বর্তমানে সহায়তা করছে। স্বাস্থ্যখাতে আধুনিক যন্ত্রপাতি নির্মাতা ১১টি বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাৎকালে তাঁদের নির্মিত বিভিন্ন যন্ত্রপাতির প্রোফাইল উপস্থাপন করে বাংলাদেশের সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে কাজ করার সদিচ্ছা ব্যক্ত করেন। এসব বৈঠকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হক, জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনসহ সফররত প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।