প্রায় ১২ বছর ধরে গাছে গাছেই রাত কাটিয়ে পার করে দিয়েছেন। আজ এ গাছে কাল অন্য গাছে। তবে দিনের বেলায় নিজের ইচ্ছাতেই আবার গাছ থেকে নেমে অজ্ঞান হয়ে পরেন তখন তাকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তিনি আপনা আপনি আবার সুস্থ হয়ে যান। সাভারে আমেনা নামের ৩৫ বছর বয়সের এমন একজন মহিলার সন্ধান পাওয়া গেছে।

গত বৃহস্পতিবার রাতে পৌরসভার রেডিও কলোনি এলাকার অদূরে মিলিটারি ফার্মের বনে ওই নারীর সন্ধান মেলে। পরে তাকে উদ্ধারের জন্য পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও সেনা সদস্যরাও ছুটে যান।AMENA_tree

রাতে গাছে থাকেন এমন খবর শুনলে আত্মসম্মান যেতে পারে বলে পরিবার থেকে সংবাদটি  গোপন করা হয়েছে। তবে পরিবার থেকে দাবি করা হয় জ্বিনের প্রভাবেই এমন হচ্ছে।

আমেনার মেয়ে রুবিনা বেগম বলেন, জ্বিনের কারণেই গাছে রাত কাটানোর অভ্যাস মায়ের। মাঝে মাঝে তার কথার সুর পরিবর্তন হয়। তখন পরিবারের কাউকে তিনি চিনতে পারেন না। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে অনেক কবিরাজের শরণাপন্ন হয়েছি আমরা। কিন্তু লাভ হয়নি। জ্বিনের প্রভাবে তিনি এখনও গাছে রাত কাটিয়ে আসছেন।

রুবিনা আরো বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে কথার সুর পরিবর্তন হয়ে যায় মায়ের। তখনি বুঝতে পারি তার উপর জ্বিন ভর করেছে। বিকেল ৩টা নাগাদ ঘর থেকে বেরিয়ে আসার জন্য ব্যাকুল হন তিনি। এক সময় আমার চোখ ফাঁকি দিয়ে বেরিয়ে পড়েন।  রাতে সংবাদ পাই মিলিটারী ফার্মের বনে একটি উঁচু আম গাছে উঠেছেন মা।

তবে উদ্ধার কার্যক্রম চালাতে গিয়ে ব্যর্থ হয়েছে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তারা মহিলাকে নামানোর জন্য গাছে উঠলে মহিলা নিজেকে জ্বিন দাবি করে গাছে অনেক ঝাকুনি মারে এবং মেরে ফেলার হুমকি দেয়। পরে মেয়েটির পরিবার থেকে জানানো হয়, তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিছু করতে গেলে যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে পারে। তখন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা নিচে নেমে আসে। পরে একটু নির্দিষ্ট সময় পরে মহিলার সময়মত সে নিচে নেমে আসে। এবং গত এক জুগের নিয়ম অনুযায়ী সে অসুস্থ হয়ে পরে। বাসায় গিয়ে বিশ্রাম নেয়ার পরে সে আবার সুস্থ হয়ে যায়।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।