আখের রস ক্ষারীয় প্রকৃতির এবং শর্করায় সমৃদ্ধ। এ ছাড়া এতে রয়েছে খনিজ, সামান্য পরিমাণে প্রোটিন ও ভিটামিন।sugercane

আমরা সাধারণত আখের কাঁচা রসটাই পান করে থাকি। তবে চাইলে একটু লেবু, আদা কিংবা ডাবের পানির সঙ্গে মিশিয়েও পান করতে পারেন।
উপকারিতা
* ঠাণ্ডা-জ্বর, গলায় ক্ষত ইত্যাদি সারায়।
* দেহকে ঠাণ্ডা রাখার সঙ্গে সঙ্গে শক্তি বাড়ায়।
* কিডনি, হৃৎপিণ্ড, মস্তিষ্ক, চোখ, পাকস্থলী ইত্যাদি কার্যক্ষম রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
* বিপাক ও হজমক্রিয়া সুস্থ রাখে।
* রক্তের গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখে। ফলে ডায়াবেটিক রোগীরাও পান করতে পারেন।
* এই রস ক্যান্সার প্রতিহত করে।
* দাঁতের ক্ষয় রোধে আখের রস প্রতিরোধক।
* প্রস্রাবের প্রবাহ স্বাভাবিক রাখে।
* জন্ডিসে আখের রস ওষুধের ভূমিকা পালন করে।
খেয়াল রাখুন
* অতিরিক্ত আখের রস পানে ওজন বৃদ্ধি পাবে এবং ডায়াবেটিক রোগীর রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।
* কিন্তু খুব গরমে এবং বাতাসবিহীন আবহাওয়ায় এক গ্লাস আখের রস সুপেয় পানীয়।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।