অপবাদ থেকে থেকে মুক্ত হলো মোবাইল ফোন। ক্যান্সারের অন্যতম কারণ, এই ভয়াবহ অপবাদ ছিল মোবাইলের ঘাড়ে। নতুন এক গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে শিশু অবস্থায় ক্যান্সার বা রক্তের ক্যান্সারের(লিউকোমিয়া) কারণ নয় এই দরকারি যন্ত্রটি।mobile_phone_talking

বহুদিন ধরেই ভয় ছিল মোবাইল ফোনের অতি ব্যবহারকে কেন্দ্র করে। মনে করা হত মোবাইল ফোন ও টাওয়ার থেকে যে রেডিওতরঙ্গ নির্গত হয় তা মস্তিষ্কে টিউমার, মাথা যন্ত্রণা ও ক্যান্সারের অন্যতম কারণ। কিন্তু ব্রিটেনের নতুন গবেষণা অনুযায়ী মোবাইল ফোন ব্যবহার সম্পূর্ণ সুরক্ষিত।

পৃথিবীজুড়ে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ঝুঁকি নিয়ে ব্রিটেনের মোবাইল টেলিকমুউনিকেশন অ্যান্ড হেলথ রিসার্চ প্রোগ্রামের তরফ থেকে ইলেক্ট্রোম্যগনেটিক তরঙ্গ বিশেষজ্ঞ মার্টিন গ্লেডহিল জানিয়েছেন মোবাইল থেকে নির্গত রেডিওতরঙ্গ শরীরের পক্ষে ক্ষতিকারক কি না সে বিশেষ কোনও প্রমাণই পাওয়া যায়নি বিশেষজ্ঞ দলের গবেষণায়।

এক দশকের গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন গর্ভবতী অবস্থায় মোবাইল ফোনের ব্যবহার গর্ভস্থ ভ্রূণের বিন্দুমাত্র ক্ষতি করে না। লিউকোমিয়ার কারণ হিসাবেও সেল ফোনকে দায়ী করার বিরোধিতা করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

মোবাইল ফোন ও wi-fi ডেটা থেকে যে রেডিও সিগন্যাল নির্গত হয় স্বাস্থ্যের উপর তার কোনও প্রভাব পড়ে না বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।