পুরনো জুটি দেখে দেখে বাংলা সেলুলয়েড কি এবার একঘেয়ে লাগছে? চিন্তা নেই। নতুন বছরে টলিউডে বেশ কয়েকটা নতুন জুটির জন্ম হতে চলেছে। হচ্ছে-হবে করে শেষমেশ ‘বচ্চন’-এ জিতের সঙ্গে জুটি বাঁধলেন পায়েল। আর তারই জেরে কি ভেঙে গেল জিৎ-শুভশ্রীর জুটি? শোনা যাচ্ছে, প্রভাত রায়ও তাঁর ‘পিতৃভূমি’ ছবির সিক্যুয়েলে জিৎ-এর বোন হিসেবে কাস্ট করছেন শুভশ্রীকে। তাহলে? উপায় না দেখে এবার টলিপাড়ার নয়া চোখের মণি অঙ্কুশের সঙ্গে জুটি বাঁধলেন শুভশ্রী। এস কে মুভিজের নতুন ছবি ‘আমি শুধু চেয়েছি তোমায়’-এ একসঙ্গে অভিনয় করবেন দুজন। ‘খিলাড়ি’-খ্যাত অশোক পতিই এই ছবির পরিচালক।

নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে এ এক মাখো মাখো প্রেমের গল্প। শুধু প্রেম নয়, ত্রিকোণ কলেজ-প্রেমের গল্প। তাহলে কি ‘স্টুডেন্টস অফ দ্য ইয়ার’-এর রিমেক? তেমন কোনও সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে প্রযোজনা সংস্থা। তবে ত্রিকোণ প্রেম মানে নিশ্চয়ই অঙ্কুশ-শুভশ্রী ছাড়া আরও একজন আছেন। তিনি কে? তিনি এই টলিউড বাজারে একেবারেই আনকোরা। তাঁর নাম সাইমন। বাংলাদেশে বেশ কয়েকটা ছবি-টবি করে ইতিমধ্যেই নাম-ডাক করেছেন এই বাংলাদেশি হিরো। এবার অঙ্কুশ-শুভশ্রীর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে টলিউডে ডেবিউ করতে আসছেন তিনি। অনেক দিন পর আবার বাংলাদেশি হিরো এই টলিউডে! তাহলে কি বাংলাদেশ-এ রিলিজ নিয়ে কিছু ভাবছে এস কে মুভিজ? যদিও এরকম কোনও প্ল্যানিং-এর কথা এই মুহূর্তে নেই বলে জানিয়েছে প্রযোজক সংস্থা।

সিনেমার নাম ক্যাক্টাস-এর যে গানের নামে, সেই গানটি আমাদের খুব চেনা হলেও ছবির গল্প এই মুহূর্তে অচেনাই রেখে দিতে চায় প্রযোজনা সংস্থা। প্রোডাকশনের সকলেই একবারে স্পিকটি নট। শুভশ্রীকে ফোনে ধরা হলে তিনি সাফ জানিয়ে দিলেন, ‘আমি ছবি নিয়ে বা আমার চরিত্র নিয়ে এখনই কিছু বলতে পারব না। বলা বারণ আছে। তবে এইটুকু বলতে পারি আমার চরিত্রটা খুব ইন্টারেস্টিং আর আমার অন্য ছবিগুলোর মতো এই ছবিতেও নতুন লুক-এ পাবেন’।

তবে কুড়িয়ে বাড়িয়ে যা পাওয়া গেল, তা হল এই ছবির হিরো অনাথ। মাথা রাখার মতো কাঁধ সে কোনও দিনই পায়নি। একটা মাথা-রাখার-কাঁধ তার জীবনে খুব দরকার। কলেজে পড়তে এসে এমন একটা কাঁধ সে পেল বটে কিন্তু বিপত্তিটা তখনই ঘটল। কী এমন ঘটল? না, সেই সব আর জানা যায়নি। তবে অঙ্কুশ জানিয়েছেন, ‘ছবির স্ক্রিপ্ট এখনও পুরো শেষ হয়নি। আমার একটা নাম ঠিক হয়েছে বটে কিন্তু সেটাও ফাইনাল নয়, তাই বলতে পারব না। তবে এই ছবি একেবারেKhokababu-Bengali-Movie-stillsই ইয়ুথ ওরিয়েন্টেড। কলেজের প্রেম-টেম যেমন হয় ঠিক তেমন ভাবেই ছবিটা করা হচ্ছে। এই ছবির একটা ইউ এস পি হল এই ছবির ফার্স্ট হাফের সঙ্গে সেকেন্ড হাফের কোনও মিল নেই। আমার তিনটে লুক আছে এই ছবিতে। আমি তো খুব এক্সাইটেড’।

এই মাসের শেষ থেকে শুরু হচ্ছে ছবির ওয়ার্কশপ। তার পর বাক্সপ্যাটরা বেঁধে জানুয়ারির প্রথমে গোটা ইউনিট সোজা চলে যাবে দার্জিলিং। ওখানেই যে অশোক পতি বলবেন ‘অ্যাকশন’!

টি মন্তব্য

মন্তব্য বন্ধ

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।