পৃথিবীর নানান নামী-দামী গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান সমূহ স্বয়ংক্রিয় গাড়ি তৈরি করতে রীতিমত প্রতিযোগিতায় নেমেছে। এরই মাঝে সম্প্রতি শীর্ষ গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মার্সিডিজ বেঞ্জ চালক বিহীন গাড়ির সফল পরীক্ষা চালিয়েছে…

চালক বিহীন গাড়ি সাধারণত Tracking Device এর সাহায্যে অন্যান্য গাড়িসমূহ এবং একই সাথে রাস্তার অন্যান্য জিনিসের মাঝে সংযোগ রক্ষা করে রাস্তায় নিরাপদে চলতে পারে। সেই দিন আর দূরে নয় যখন রাস্তায় সকল গাড়ি থাকবে চালক বিহীন এবং তারা সব ধরণের ট্র্যাফিক আইন মেনেই রাস্তায় স্বয়ংক্রিয় ভাবে চলবে; ফলে সে সময় হয়ত ট্র্যাফিক সিগন্যাল লাইটের প্রয়োজন হবে না।Mercedes-Benz

যাই হোক পৃথিবীর নাম করা ব্র্যান্ড মার্সিডিজ বেঞ্জ ইতোমধ্যে এই কল্পনাকে বাস্তব রুপ দিতে চলেছে। সম্প্রতি গাড়ি প্রস্তুতকারী এই প্রতিষ্ঠান তাদের স্বয়ংক্রিয় চালক বিহীন গাড়ির রাস্তায় চালনার সফল পরীক্ষা সম্পূর্ণ করেছে। মার্সিডিজ বেঞ্জ তাদের এস৫০০ মডেলের এই গাড়িটি চালক ছাড়াই ১০০ কিলোমিটার পথ পরিভ্রমণ করিয়েছে দক্ষিণ জার্মানির একটি রাস্তায়।

মার্সিডিজ বেঞ্জ থেকে জানানো হয়েছে তারা তাদের এস ৫০০ মডেলের এই গাড়িতে partially-automated প্রযুক্তির বর্ধিত সংস্করণ ব্যবহার করেছেন। Partially-automated প্রযুক্তি ইতোমধ্যে মার্সিডিজ বেঞ্জের ই ক্লাস এবং এস ক্লাস ড্রাইভিং কারে রয়েছে। মার্সিডিজ পৃথিবীর প্রথম চালক বিহীন গাড়ির জন্য partially-automated প্রযুক্তির কিছুটা পরিবর্তন এনেছে।

মার্সিডিজ বেঞ্জ জানিয়েছে তারা তাদের নতুন এই স্বয়ংক্রিয় গাড়িটিতে বিশেষ তিনটি ডিভাইস সংযুক্ত করেছে। এগুলো হচ্ছে: Distronic Plus সাথে Steering Assist এবং Stop ও Go Pilot প্রযুক্তি। এছাড়াও এতে থাকবে ড্রাইভার সহকারী হিসেবে অটো ক্যামেরা প্রযুক্তি। এদিকে নতুন এই চালক বিহীন গাড়ি এস ৫০০’তে সংযুক্ত এই স্বয়ংক্রিয় চালন ব্যবস্থা কেবল তখনই কার্যকর থাকবে যখন গাড়ি ৬ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টায় চলবে; এর চেয়ে বেশী গতিতে এই প্রযুক্তি অকার্যকর বলে জানানো হয়েছে।

গাড়িটি নিজে থেকেই গাড়ির নিয়ন্ত্রণ নিতে সক্ষম যদি হঠাৎ এর ড্রাইভার হুইল থেকে হাত তুলে নেয়। এটি নিজেই চলতে সক্ষম এবং একই সাথে প্রয়োজনে নিজ থেকেই গাড়িকে থামিয়ে দিতেও সক্ষম।

মার্সিডিজের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, “তারা খুব তাড়াতাড়ি তাদের এস ক্লাস যানবাহনে স্বয়ংক্রিয় চালক বিহীন এই প্রযুক্তি সংযুক্ত করবে এবং ২০২০ সাল নাগাদ তারা এই প্রযুক্তির গাড়ি বাজারে নিয়ে আসবে।”

মার্সিডিজ বেঞ্জের প্রধান ইঞ্জিনিয়ার Thomas Weber বলেন, “এস ৫০০ তৈরির ক্ষেত্রে এটি কেবল স্বয়ংক্রিয় গাড়ি হিসেবে তৈরি করাতেই আমাদের মনোযোগ ছিল না, বরং আমরা চেয়েছি একে একটি আধুনিক স্টাইলিশ গাড়ি হিসেবে উপস্থাপন করতে।”

টি মন্তব্য

মন্তব্য বন্ধ

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।