চিলি চিকেন খাবারটি অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশেও দারুন জনপ্রিয়। চাইনিজ খাবারের কথা মনে হলেই চিলি চিকেনের অসাধারণ স্বাদের কথা সবার আগে মনে পড়ে। চিলি চিকেন খাবারটি মূলত চাইনিজ হলেও বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করে ভারতে এসে। কলকাতায় বসবাসকারী চাইনিজদের মাধ্যমেই এই সুস্বাদু খাবারটি আশেপাশের অনেক দেশে পরিচিতি লাভ করে, সাথে যোগ হয় ভারতীয় স্বাদের বাহার। ভারতীয় ধাঁচের চিলি চিকেনটাই মূলত আমাদের দেশে জনপ্রিয় বেশি। ফ্রাইড রাইসের পাশাপাশি পোলাও, পরোটা ও লুচির সাথেও চিলি চিকেন অনায়াসেই খাওয়া যায়। আর তৈরি করতে? ভীষণ সহজ, সময়ও লাগে মাত্র ১৫ মিনিট!
উপকরনঃ

হাড় ছাড়া মুরগীর মাংস (টুকরো করা)– ৪০০ গ্রাম
কর্ণ ফ্লাওয়ার– ২ টেবিল চামচ
লবন – স্বাদ মতো
গোল মরিচের গুঁড়া– আধা চা চামচ
ডিম– ১ টি
ডার্ক সয়াসস– ২ টেবিল চামচ
তেল– ভাজার জন্য
রসুন কুঁচি – ৮\১০ কোয়া
পেঁয়াজ ৪ টুকরা করে পাপড়ি ছাড়িয়ে নেয়া– ১/২ কাপ
ক্যাপসিকাম ( চার কোনা করে কাটা )– ১/২ কাপ
রেড চিলি সস – ২ টেবিল চামচ
ভিনেগার– ১ টে চামচ
মুরগীর স্টক বা পানি – পরিমান মতো
স্বাদ লবণ- সামান্য
প্রনালীঃ

একটি বাটিতে মুরগীর মাংস, গোল মরিচের গুঁড়া, ১ টেবিল চামচ কর্ণ ফ্লাওয়ার, একটি ডিম ও ১ টেবিল চামচ সয়াসস দিয়ে ভাল করে মাখিয়ে কয়েক মিনিট ম্যারিনেট হতে দিন।

কড়াইয়ে তেল ভাল মতো গরম করে মুরগীর টুকরা গুলোকে সোনালী করে ভেজে তুলে আলাদা করে রাখুন।chilli_chicken

আরেকটি কড়াইয়ে পরিমান মতো তেল দিয়ে তাতে রসুন কুঁচি দিয়ে হালকা বাদামী করে ভাজুন। রসুন বাদামী রঙ হলে কাঁচা মরিচ কুঁচি, টুকরা করা পেঁয়াজ ও ক্যাপসিকাম মেশান। এবার এর সাথে বাকি সয়াসস, রেড চিলি সস দিয়ে হালকা হাতে নাড়ুন।

এবার এতে ভাজা মুরগীর টুকরাগুলো দিয়ে ভালমতো মেশান। সামান্য চিকেন স্টক বা পানি দিয়ে অল্প সময় ঢেকে রাখুন।

বাকি কর্ণ ফ্লাওয়ার টুকু অল্প পানিতে গুলে মুরগীতে দিয়ে দিন। স্বাদ লবন ও ভিনেগার দিয়ে মিশিয়ে কিছু সময় ঢেকে রান্না করুন। গ্রেভি মাখা মাখা হলে ফ্রাইড রাইসের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।

 

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।