একেই বলে শুরু। কফি উইথ করণের প্রথম পর্বেই ঝটকা খেল দর্শক। ভারতের মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলর সলমন খান ক্যামেরার সামনেই জানিয়ে দিলেন তিনি এখনও ভার্জিন।

সলমনের বয়স এখন ৪৭। বহু মহিলার সঙ্গেই তাঁর ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে বিভিন্ন সময়ে। তাই সলমনের মুখে তাঁর সতীত্বের দামামা শুনে চমকেছেন সকলেই। কিন্তু সল্লু মিঞা স্পষ্টই জানিয়েছেন, “আমি এখনও ভার্জিন। যাঁর সঙ্গে আমার বিয়ে হবে তাঁর জন্যই সতীত্ব বাঁচিয়ে রেখেছি আমি। একটা সময় ছিল যখন আমি সত্যিই বিয়ে করতে চাইতাম। কিন্তু তখন হল না। অনেকবার বিয়ের দিকে এগিয়েও শেষ পর্যন্ত হল না।”
coffee_with_karan_salman_khan
প্রাক্তন প্রেমিকা সঙ্গীতা বিজলানিকে বিয়ে করতে প্রস্তুত ছিলেন বলেও জানান সলমন। বিয়ের কার্ডও নাকি ছাপা হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু হঠাত্ই সঙ্গীতা সলমনকে অন্য মহিলার সঙ্গে আবিষ্কার করেন। সেখানেই ইতি সম্পর্কের। সলমন নিজেই জানান, “আমি এখন জীবনের যেই পর্যায়ে রয়েছি, তাতে আমাকে বিয়ের জন্য আমি উপযুক্ত নই।”

কাজের জগতে প্রাক্তন প্রেমিকাদের সঙ্গে কীভাবে সহজ সম্পর্ক রাখেন? করণের প্রশ্নের উত্তরে সলমন বলেন, “কাউকে আমি সম্পূর্ণ উপেক্ষা করি। তাঁদের কাছ থেকে পালানোর চেষ্টা করি। এই কারণে নয় যে আমি তাঁদের সামনে আসতে ভয় পাই। তাঁদের নিজেদের জীবন রয়েছে। আমি চাই তাঁরা নিজেদের জীবনে খুশি থাকুক। তবে সঙ্গীতার সঙ্গে সম্পর্ক পরিবারের মতো।”

কফি উইথ করণের সোফায় বসে অনেক তারকাই অনেক সময়ে মনের কথা খুলে বলেছেন। সলমনও তাঁর ব্যতিক্রম নন। তবে সতীত্ব কি ব্যাচেলর হিসেবে সলমনের দর বাড়াবে? নাকি কমবে সল্লু মিঞার দাম? উত্তর সময়ই দেবে। তবে বলিউডি ইতিহাস কিন্তু বলছে, জল গড়াবে অনেক দূর।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।