মিল আছে এই নেই। কতো কারণেই নাটকের কাহিনীর মতো তারকাদের জীবনেও চলে মিল-অমিলের খেলা। অভিনেতা অপূর্ব ও বিন্দূর কথাই ধরা যাক। টিভি নাটকে লম্বা সময়ের সহযাত্রী দু’জনে। প্রথমে ভাল বন্ধুত্ব, পরে নাকি মন দেয়া-নেয়ার গল্পটাও জুড়ে গেছে ওই বন্ধুত্বের দেয়াল টপকে। যদিও সেই প্রেমের গল্পটা মিডিয়ায় অপ্রকাশিতই রয়ে গেছে আজ অবধি। কিংবা দু’জনার প্রেমের গল্পটি পূর্ণতা পাওয়ার আগেই অপূর্ব’র প্রেমিক মনে ঢুকে পড়েন প্রভা। এরপরের গল্প তো সবারই জানা। হঠাৎ পালিয়ে বিয়ে, নীরবে ডিভোর্স।

এরপর অপূর্ব-প্রভা দু’জনেই আলাদা আলাদা বিয়ে-সংসার নিয়ে নিজেদের পুরনো প্রেম-বিয়ের গল্পটাকে রূপকথায় পরিণত করেন। তাতে কি! অপূর্ব-প্রভা দু’জনার দু’টি পথ দু’দিকে বেঁকে গেলেও বিন্দু সব অভিমান জমিয়ে রেখেছেন প্রেমিক মনে। জানা যায়, আজও অপূর্ব-বিন্দু একে অপরের মুখ দেখাদেখি বন্ধ রেখেছেন। প্রভার সঙ্গে অপূর্ব’র প্রেম-বিয়ের পর থেকেই এ অবস্থা। তবে কি কারণে তিনি অপূর্বকে এড়িয়ে চলেছেন তাও কোন সময় স্পষ্ট করেননি, কারও কাছে। 1380538402.

যদিও সতীর্থ তারকা শিল্পীরা এখনও টিপ্পনি কাটেন এই বলে, প্রেম থেকে প্রত্যাখ্যান করার অপমান এখনও ভুলতে পারেননি বিন্দু। তাই কৌশলে এড়িয়ে চলছেন অপূর্বকে। অন্যদিকে অপূর্বও কোন অংশে কম যান না। বিন্দূর এমন এড়িয়ে চলার ঘটনায় অপূর্বও একই পন্থা অবলম্বন করছেন। তার কাছেও বিন্দু আছেন এমন নাটক গ্রহণযোগ্য নয়। কেবল তাই নয়, বিন্দু যদি কোন অনুষ্ঠানে থাকেন, তাহলে সেখান থেকে অপূর্বও সরে আসেন ঝটপট। শোনা যায়, তারা নাকি একে অপরের চেহারাও সহ্য করতে পারেন না। তাই তো গেল দু’বছরে এই দু’জনকে নিয়ে কোন নাটক, টেলিফিল্ম কিংবা ধারাবাহিক নির্মাণ করতে সমর্থ হননি নির্মাতারা। যা নাটক মিডিয়ায় এখন ওপেন সিক্রেট।

প্রায় সব নির্মাতাই জানেন, কোন নাটকে অপূর্বকে নিলে বিন্দুকে পাবেন না, আর বিন্দু থাকলে অপূর্বকে পাওয়া যাবে না। মজার বিষয় হলো, এ বিষয়টি নিয়ে দু’জনের একজনও মুখ খুলতে নারাজ! যদিও সবাই জানেন, অপূর্ব’র প্রেম থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়ে এই দূরত্ব সৃষ্টি করেছেন বিন্দু আর সেই দূরত্বের সীমানা বাড়াতে সহযোগিতা করেছেন অপূর্ব। এদিকে নাটক মিডিয়ায় অপূর্ব’র সঙ্গে শুধু যে বিন্দূরই দূরত্ব কিংবা মুখ দেখাদেখি বন্ধ, তা কিন্তু নয়। ছোটপর্দার এই চকোলেট বয়ের সঙ্গে একই মানের দূরত্ব বজায় রেখে চলছেন প্রাক্তন প্রেমিকা-স্ত্রী প্রভা এবং লাক্স তারকা বিদ্যা সিনহা মীম। প্রভার সঙ্গে অপূর্ব’র চলমান দূরত্বের কারণ সবারই জানা। তবে ধোঁয়াশা রয়েছে মিমের সঙ্গে চলমান দূরত্বকে ঘিরে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, বছরখানেক আগে আমেরিকায় একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যান অপূর্ব ও বিদ্যা সিনহা মিম। সঙ্গে ছিলেন মিমের মাও। সেখানে অপূর্ব’র প্রতি মিমের মায়ের একটি ঠোঁটকাটা মন্তব্যের পর থেকেই দু’জনার দূরত্বের দেয়াল তৈরি হয়। তাই তো গেল এক বছরে অনেকে চেষ্টা করেও নির্মাতারা এই দুই শিল্পীকে একসঙ্গে করে কোন নির্মাণে যেতে পারেননি। আবার এ নিয়ে কোন পক্ষই স্পষ্ট কোনো মন্তব্যে যেতে নারাজ। আর এসব মিলিয়ে বিন্দু-প্রভা-মীমের সঙ্গে অপূর্ব’র অভিনয় করাতো দূরের কথা, একে অপরের সঙ্গে মুখ দেখাদেখিও বন্ধ। বিষয়টি নিয়ে অপূর্বর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এমন কোন ঘটনাই নেই। প্রভার সঙ্গে মুখ দেখাদেখি বন্ধ বা তার সঙ্গে কাজ করছি না- এটা ঠিক আছে, আর এটা হওয়াটাই কি স্বাভাবিক নয়? এর পেছনের কারণওগুলোতো সবারই জানা।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।