40617-300x300একটা সময় সামাজিক ও ধর্মীয় কারণে শুধুমাত্র বিবাহিত নারীদের নাকফুল পরার প্রচলন ছিল। নাকফুল পরা দেখলে বোঝা যেতে সেই নারী বিবাহিত। কিন্তু বর্তমানে নাকফুল পরার সেই ধারণাটিই অনেকাংশে বদলে গেছে। এখন শুধু বিবাহিত নারীই নয়, ফ্যাশনের একটি অংশ পরিণত হয়ে গেছে নাকফুল। কিশোরী থেকে শুরু করে সব বয়সী নারীই পোশাকের রঙের সঙ্গে মিল রেখে হরক রকম নাকফুল পরে থাকেন।

বর্তমানে শুধু শাড়িই নয়, সালোয়ার কামিজ, ফতুয়া, টপসসহ সব ধরনের পোশাকের সঙ্গেই এখন সৌন্দর্যপ্রিয় নারীরা নাকফুল পরে থাকেন। আর এটি নারীর সৌন্দর্য অনেকটা বাড়িয়েও দেয়।

বর্তমানে সোনা ও রুপার নাক ফুলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে নানা রকমের পাথর, হীরা, মুক্তা, জিরকন, এমারেল্ড ও গার্নেটের নাকফুল। চাহিদার কথা মাথায় রেখে বর্তমানে বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস নানা ডিজাইন ও রঙের নাকফুল বিক্রি করে থাকে। পাশাপাশি পছন্দ মতো ডিজাইন দিয়ে জুয়েলারির দোকান থেকে তৈরি করা যায় সুন্দর ও আকর্ষণীয় একটি নাকফুল।

সোনার তৈরি বিভিন্ন আকারের নাক ফুল পরতে চাইলে আপনি চলে যেতে পারেন চাঁদনী চক, নিউমার্কেটসহ যেকোনো জুয়েলারির দোকানে। এছাড়াও বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস যেমন- আড়ং, যাত্রা, নবরূপা, বসুন্ধরা সিটির নিচ তলাসহ বড় বড় ফ্যাশন হাউসে পেয়ে যাবেন আপনার পছন্দের নাকফুল।

তবে নাকফুল শুধু কিনলেই হবে না, এর সঙ্গে লক্ষ্য রাখতে হবে আপনি যে নাকফুলটি কিনছেন তা আপনার চেহারার সঙ্গে কতটা মানানসই। নাক ফুল নির্বাচনের ক্ষেত্রে যেসব বিষয় খেয়াল রাখাবেন- যাদের নাক বেশি খাড়া নয়, তারা এক পাথরের ছোট নাকফুল বেছে নিলে ভালো লাগবে। আবার যাদের নাক খাড়া ও লম্বা তারা বড়, ছোট এবং এক বা একাধিক পাথরের নাকফুল পরতে পারেন। এছাড়া সব সময় ব্যবহারের জন্য এক পাথরের হীরার তৈরি ছোট নাকফুল নির্বাচন করতে পারেন। তরুণীরা চাপা নথ ব্যবহার করতে পারেন।

বর্তমানে বিভিন্ন রঙের ছোট পিনের নাক ফুলের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। বয়স ও জায়গাভেদে নাকফুল নির্বাচন করা উচিৎ। কর্মক্ষেত্রে বড় নাকফুল ব্যবহার না করাই ভালো। অনুষ্ঠানে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে একটু জমকালো বড় নাকফুলও পরা যেতে পারে।

তবে এখনোও যারা নাক ফোড়ান নি, তারা ভালো কোনো পার্লার অথবা ডাক্তারের সরণাপন্ন হতে পারেন। কারণ নাকে কিছু স্পর্শকাতর শিরা থাকে। তাই নাক ফোড়ানোর পর প্রথমে সোনার নাক ফুল পরলে আর সমস্যা হয় না। যাদের এলার্জি আছে তারা নাক ফোড়ানোর পর এলার্জি জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলুন। আর যারা কখনই নাক ফোঁড়াবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই। এখন বাজারে বিভিন্ন ডিজাইনের আলগা নাকফুলও পেয়ে যাবেন সহজে।

নাকফুল যত্নে রাখতে চাইলে ব্যবহার শেষে টিস্যু কিংবা তুলোয় মুড়িয়ে রাখুন। এতে আপনার প্রিয় নাকফুলটি দীর্ঘদিন ব্যবহার উপযোগী থাকবে।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।