2010-11-01-16-43-35-013765200-19-4অনেকে ভাবেন কানে ছোট দুল পড়লে ভালো লাগবেনা। হাওয়া বদলের সাথে সাথে মানুষের মনও বদলে যায়, সেই সাথে বদলে যায় পুরনো ফ্যাশন।

প্রকৃতিতে এখন প্রচন্ড গরম। গরমে একটু স্বস্তির জন্য মানুষের মন অস্থির থাকে। কিন্তু কাজ তো থেমে থাকে না, কাজের জন্য বাইরে বের হতেই হয়। আর বাইরে বের হলে একটু সাজ করা লাগেই। মেয়েদের সাজের প্রধান সামগ্রীই হচ্ছে কানের দুল। কানের দুল না পরলেই নয়। সব মেয়েরাই পোশাকের সাথে মিলিয়ে কানের দুল পরবেই।

এই প্রচন্ড গরমে স্বস্তি পাওয়ার জন্য সবকিছুর হচ্ছে হালকা ব্যবহার। তা খাওয়া থেকে শুরু করে পোশাক, সাজ সবকিছুতেই। সেই সাথে কানের দুলও।

এখন বড় কোনো অকেশন ছাড়া শাড়িতেও ফ্যাশন সচেতন মেয়েরা কেউ বড় কানের দুল পরে না। শর্ট কামিজ, ফতুয়া, স্কার্ট এমনকি শাড়ির সাথেও মেয়েরা জারকান, রুমি এবং নরমাল পাথরের ছোট কানের দুল বেশি পড়ছে। দাম কোনো বিষয় না, বিষয় হচ্ছে কানের দুল আপনার চেহারা এবং ড্রেসের সাথে মিলে ফ্যাশনে কতটা বৈচিত্র্য আনতে পেরেছে।

আপনার সাজ-পোশাকের সাথে ছোট একজোড়া কানের দুল এনে দিবে আপনার সুরুচির পরিচয়। এছাড়া বিভিন্ন হস্তশিল্প প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েও আপনি ঘরে বসেই তৈরি করতে পারেন আপনার পছন্দের কানের দুল। এভাবে সৃজনশীল কাজের মাধ্যমে কানের দুল ব্যবহার করে আপনার সুরুচির পাশাপাশি ফ্যাশনেও আনতে পারেন নতুনত্ব। সেক্ষেত্রে আপনার ইচ্ছাটাই যথেষ্ট। মানুষ এক জায়গায় একটা ফ্যাশন নিয়ে বেশিদিন পড়ে থাকে না।

প্রতিদিনই থাকে পুরনোকে ঘিরে নতুন কিছু করার প্রবণতা। প্রাচীনকাল থেকেই কানের দুলের ব্যবহার। আগে ছেলেরাও কানের দুল পরত। এখনও সেটা বিদ্যমান। ছেলেরাও এক কানে ছোট রিং ব্যবহার করছে।

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।