paaaaa

পান খেয়ে ঠোঁট লাল করার যুগ হয়তো এখন আর নেই, কিন্তু পান এর কদর কিন্তু দিনদিন বাড়ছে বই কমছে না। আগে যে পান নানি-দাদির মুখে শোভা পেত এখন তা অনেকেই চেখে দেখছেন শখ করে। পান সুপারির এই যুগলবন্দীকে সাধারন মানুষের কাছে জনপ্রিয় করে তুলতে যেই প্রতিষ্ঠানের অবদান সব থেকে বেশি তা হল ‘পান সুপারি।’

শহুরে মানুষকে পান সুপারির সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে ২০০৪ সালে কনা রেজা ঢাকার ধানমণ্ডিতে প্রথম চালু করেন ‘পান সুপারি’ নামে একটি দোকান, যা এখন সময়ের সাথে সাথে খোদ ঢাকাতেই চারটি শো রুম দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে নিজেদের যাত্রা। এখানে এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ১৫টি মত নানা স্বাদের পান যার মধ্যে ব্যবহার করা হয় সর্বনিম্ন ১৬টি থেকে সর্বোচ্চ ১২০ পদের মসলা। তারমধ্যে আছে কিশমিশ, এলাচ, লাল ও সাদা খোরমা, কাঠবাদাম, পেস্তা, মধু, জয়ফল, জয়ত্রী, দারুচিনি, মোরব্বা, চেরি এবং জাফরানসহ একটি বিশেষ হার্বাল পানি যা প্রাকৃতিক ৮০ রকম উপাদান থেকে তৈরি করা হয়ে থাকে। তবে এত কিছুর মধ্যে নেই ক্ষতিকারক কোন উপাদান যেমন তামাক বা এই জাতীয় জিনিস।

banarsi-paan

পানে যেমন মজাদার উপাদান ব্যবহার করা হয় তেমনই পানের নামেও আছে নতুনত্ব। এখানে পাবেন পান সুপারি লাল, পান সুপারি সবুজ থেকে শুরু করে টেন ও ক্লক নাইট পান যাতে ব্যবহার হয় তুলসি পাতার। এছাড়াও আছে মজাদার জামাই পান ও বউ পান যা সাধারনত বিয়েতে জামাই বউকে খাওয়ানো হয়ে থাকে। তবে আপনি চাইলেই এই পান চেখে দেখতে পারেন এখানে। আরও আছে পান মাইসুরি, পান হাইদ্রাবাদি থেকে শুরু করে বারানাসি পর্যন্ত নানা স্থানের নাম দিয়ে তৈরি পান। এসব পানের নামের যেমন বাহার তেমনই স্বাদেও এরা অনন্য। আসুন জেনে নেই নানা পদের পানের নাম ও তাদের মূল্য।

*পান সুপারি লাল-২০ টাকা
*পান সুপারি সবুজ-২৫ টাকা
*পান বেনারসী-৩০ টাকা
*পান হায়েদ্রাবাদী৩৫ টাকা
*পান রেগুলার (জর্দা পান)-৩৫ টাকা
*টেন ও ক্লক নাইট পান-৪০ টাকা
*পান সুপারি রূপা-৪৫ টাকা
*পান সুপারি সোনা-৫০ টাকা
*ডায়েবেটিক পান-৫৫ টাকা
*পান এ খোশ-৭০ টাকা।
*স্পেশাল ডাবল সাচি পান-৮০ টাকা
*বাংলা পান-১৫০ টাকা
*বৌ পান-১৭০ টাকা
*জামাই পান-১৭০ টাকা
*স্পেশাল পান-২০০ টাকা

এসব ছাড়াও বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও দরকার মত সাপ্লাই দেয়া হয় পান। এছাড়াও এখান থেকে চাইলে সাজিয়ে নিতে পারেন হলুদের পানের ডালাও। যদি ডালা আপনি নিয়ে যান তবে শুধু পানের মূল্য দিলেই হবে। এছাড়াও চাইলে তাদের কাছে থেকেই নিয়ে নিতে পারেন ডালা সহ সাজানো পান। সেক্ষেত্রে পানের সাথে সাথে দিতে হবে ডালার মূল্যটাও।

পান ছাড়াও এখানে নানা রকম পান মসলা ও কাঁচা আমের মজাদার বোরহানিও পাবেন এখানে। চাইলে পিঠাও নিতে পারেন এখান থেকে তবে পিঠার জন্য অর্ডার করতে হবে আগে থেকেই। বেশি করে পান নিতে চাইলেও অর্ডার করতে হবে আগেই। দেশি পান চাইলে অন্তত একদিন আগে ও বিদেশি পান চাইলে কমপক্ষে ৫ থেকে ৬ দিন আগে অর্ডার করতে হবে আপনাকে।

vns2

তবে যদি ভাবেন আয়েশ করে পান খাবেন সেই সাথে চলবে আড্ডা তবে আপনার জন্য কিছুটা দুঃসংবাদই বলা যায়, কারন এখানে নেই কোন বসার ব্যবস্থা। খাবার পূর্বে মূল্য পরিশোধ করে নিয়ে নিতে হবে পান এবং আড্ডা দিতে চাইলে খুজে নিতে হবে অন্য কোন জায়গা। ধানমণ্ডি তো বটেই এদের অন্যান্য শাখার কোনটাতেই নেই বসার সুব্যবস্থা। পান সুপারির সবগুলো শাখাই খোলা থাকে দিনের বেলা ১১টা থেকে রাত সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত শুধু মাত্র এয়ারপোর্ট এর শাখাটি খোলা থাকে ২৪ ঘণ্টা। তো এখন আর অপেক্ষা কেন। যারা পান সুপারির মজাদার স্বাদ পেতে চান তারা আজই চলে যান পান সুপারির যেকোন শাখায় এবং মনমত পানের স্বাদ আহরণ করুন।

ঠিকানাঃ
মমতাজ প্লাজা
বাড়ি ০৭, রোড ০৪, ধানমন্ডি, ঢাকা। ফোন: ০১৭১২-৭৭৭১৫৬
লেভেল ৮, বসুন্ধরা সিটি শপিং মল, পান্থপথ, ঢাকা।
ফোন: ০১৭২৮-২১২০২৭
শাহ জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর
এয়ারপোর্ট রোড, ঢাকা।
ফোন: ০১৭৩৩৫৮৩২৮৬
(ইমিগ্রেশন রুম পেরিয়ে)
বাড়ি ২১, রোড ২৪, ব্লক কে
বনানী, ঢাকা।
ফোন: ০১৭১১১৭৫৫৮৭, ০১৭১৬৬২০৪৮৮

টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Note: All are Not copyrighted , Some post are collected from internet. || বিঃদ্রঃ সকল পোস্ট বিনোদন প্লাসের নিজস্ব লেখা নয়। কিছু ইন্টারনেট থেকে সংগ্রহীত ।